নিউজ ডেস্ক : বুয়েটের শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হ’ত্যাকা’ণ্ডের ঘটনায় মেফতাহুল ইসলাম জিওন নামের আরেক আসামি ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। জানিয়েছেন, হ’ত্যাকা’ণ্ডের সময় তিনি নিজেও আবরারকে কিল-ঘুষি মেরেছেন এবং ক্রিকেট স্টাম্প দিয়ে হাঁটুতে পি’টিয়েছেন।

গ্রেপ্তার করেছে ডিবি পুলিশ। তাঁরা দেশের বাইরে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টায় ছিলেন। এ ছাড়া আসামি অমিত সাহা ও মোহাম্মদ তোহাকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে ডিবি।

গতকাল শুক্রবার ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের ক্রীড়া সম্পাদক মেফতাহুল ইসলাম জিওন। জবানবন্দি রেকর্ড শেষে তাঁকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত। আগের দিন বৃহস্পতিবার জবানবন্দি দেন বুয়েট ছাত্রলীগের উপসমাজকল্যাণ সম্পাদক ইফতি মোশাররফ সকাল।